অর্ধেক দামে বিক্রি হলো ১৫ মনের ‘মহারাজ’!

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল দেশের খবর

মহিদুল ইসলাম,শরণখোলা (বাগেরহাট) : করোনা মহামারীর কারণে ছয় লাখ টাকার ‘মহারাজ’ বিক্রি করতে হয়েছে অর্ধেক দামে। এতে গরুর মালিক হতাশ হলেও হাসির ঝিলিক দেখা গেছে ক্রেতার মুখে। শুধু এ বছর নয়, বাগেরহাটের শরণখোলায় এযাবৎকালের সর্বসেরা কোরবানির পশু এটি।

মঙ্গলবার (২০জুলাই) এই গরুটি মাত্র তিন লাখ ২০হাজার টাকায় কিনেছেন উপজেলা সদর রায়েন্দা বাজার পাঁচরাস্তা এলাকার বাসিন্দা সৌদী প্রবাসী জামাল নূর হাওলাদার।

মহারাজের মালিক শরণখোলা উপজেলার তাফালবাড়ী এলাকার মো. হারুন অর রশিদ জানান, দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে গরুটি ছয় লাখ টাকায় বিক্রি হতো। ঢাকার এক পার্টি অনলাইনে পাঁচ লাখ টাকা বলেছিলেন। কিন্তু পৌঁছাতে না পারায় বাধ্য হয়ে অর্ধেক দামে বিক্রি করতে হয়েছে।

গরুর মালিক হারুন অর রশিদ বলেন,শাহী ওয়াল জাতের গরুটি সাড়ে তিন বছর ধরে লালন পালন করেছি। কোনো ধরণের কেমিক্যাল জাতীয় খাবার খাওয়াইনি। নিজের চাষের নেপিয়ার ঘাস, সরিষার খৈল, ভূষি খাওয়ানো হয়েছে। প্রায় আট ফুট দৈর্ঘ এবং পাঁচ ফুট উচ্চতার গরুটিতে প্রায় ১৫ মন মাংস হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।