ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা, সনাক্ত হয়নি দেহ

অপরাধ ও আইন দেশের খবর

তানমিরা সিদ্দিকা জেবু, মাদারীপুর : মাদারীপুরে আহাদ আলী (৫৮) নামের এক ব্যক্তিকে অজ্ঞাতরা পিটিয়ে আহত করেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

শুক্রবার (১১ জুন) সদর উপজেলার খোয়াজপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

আহাদ আলী যশোর জেলার ইসহাকের ছেলে। রাত ৮টা পর্যন্ত তার মরদেহ সনাক্ত করার জন্য পরিবারে কেউ আসেনি।

হাসপাতাল ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার খোয়াজপুর এলাকায় শুক্রবার আহাদ নামের এক ব্যক্তিকে অজ্ঞাতরা পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে সেখান থেকে কে বা কারা আহাদ নামের ওই ব্যক্তিকে মাদারীপুর সদর হসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কিছু সময় পর শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওই ব্যক্তি মারা যান।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. নুরুল ইসলাম বলেন, ‘সকালে কে বা কারা সদর হাসপাতালে এক ব্যক্তিকে গুরুতর আহত অবস্থায় রেখে যায়। আমরা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দিয়েছিলাম। ভর্তি হওয়ার কিছু সময় পরে ওই ব্যক্তি মারা যায়। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন ছিল। মরদেহ এখন সদর হাসপাতালে রয়েছে।’

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) এহ্সানুর রহমান ভূইয়া বলেন, ‘সদর হাসপাতালে এক ব্যক্তি মারা যাওয়ার খবর শুনে পুলিশ হাসপাতালে যায়। শুনেছি তার বাড়ি যশোর জেলায়। প্রাথমিকভাবে মরদেহের সুরতহাল করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত মরদেহ সনাক্ত করার জন্য কেউ আসেনি। আমরা ২৪ ঘন্টা পরিবারের লোকজনের জন্য অপেক্ষা করবো। পরিবারের কাউকে না পাওয়া গেলে বেওয়ারিশ হিসেবে মরদেহ দাফন করা হবে।’

তানমিরা সিদ্দিকা জেবু/চারিদিক/আকাশ