মোল্লাহাটে দু’গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৯

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল দেশের খবর

মোল্লাহাট (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : বাগেরহাটের মোল্লাহাটে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৯ জন ব্যক্তি আহত হয়েছেন। আহতদেরকে মোল্লাহাট, গোপালগঞ্জ ও খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শুক্রবার (৪ জুন) বিকেল ৪টার দিকে সরসপুর বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, আবেদ আলী খন্দকার (৬০), বাবু শেখ (৪০), আব্দুল্লাহ খন্দকার (৩০), মানিক শেখ (২৫), নাসিম গাজী ( ১৬), বিলাস (১৬), ফিরোজ শেখ (৬০), কবির শেখ (২৫) ও আনিস সরদার (৫০)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, বৃহস্পতিবার (৩ জুন) বিকেলে বাসাবাড়ি-সরসপুর এর সংযোগ কালভার্টের কাছ থেকে বাসাবাড়ি গ্রামের বিপুলের ছেলে বিলাস (১৬) সরসপুর গ্রামের ওলিউল্লাহ সরদারের ছেলে শাকিল’কে (২১) গালি দেয় (আপত্তিকর উক্তি করে)। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে বিলাসের শার্টের কলার ধরে শাকিল। তখন শাকিলকে ঘুশি মারে বিলাস। এরপর আজ শুক্রবার বিকেলে বিলাস ও তার বন্ধু বাসাবাড়ি থেকে সরসপুর হাটে গেলে শাকিলসহ কয়েকজনে তাদেরকে মারপিটসহ বিলাসের হাত মুচড়ে ভেঙ্গে দেয়। এরপর বাসাবাড়ি এলাকার লোকজন ওই বাজারে গিয়ে হামলা চালায়।

এ সময় সরসপুর গ্রামবাসীও রুখে দাড়ালে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে প্রায় আধা ঘন্টা সংঘর্ষ হয়। এতে উভয় পক্ষের ৮ জন গুরুতর আহত হয়। এছাড়া সরসপুর বাজারের কয়েকটি দোকানের আংশিক ক্ষতিসহ একটি পিকাপের গ্লাস ভাংচুর করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে মোল্লাহাট থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী গোলাম কবীর বলেন, ‘তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি এখন পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে এবং ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

শেখ শাহিনুর ইসলাম/চারিদিক/সাকিব