কালীগঞ্জে নবজাতক চুরির ঘটনায় নার্স আটক

অপরাধ ও আইন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল দেশের খবর

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের সেবা ক্লিনিক থেকে সিজারের তিনঘন্টা পর নবজাতক চুরির ঘটনায় জড়িত সাথী আক্তার তমা নামে এক নার্সকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এর আগে বুধবার (২৮ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে শহরের সেবা ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনোস্টিক সেন্টার থেকে আটক করা হয়।

আটক তমা উপজেলার এনায়েতপুর গ্রামের রাদেন বিশ্বাসের মেয়ে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসএই আবুল কাশেম জানান, বুধবার ঝিনাইদহ আদালতে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া বিনতে জাহিদের কাছে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয় নবজাতক চুরির ঘটনা মামলার প্রধান আসামি প্রিয়া খাতুন ওরফে মিনারা খাতুন। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক বুধবার রাতে সাথী আক্তার তমাকে আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এখনো মামলা তদন্ত কাজ চলছে।

কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহা. মাহফুজুর রহমান মিয়া জানান, নবজাতক চুরির প্রধান আসামি আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক নার্স তমাকে আটক করা হয়েছে। নবজাতক চুরির ঘটনায় তার সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ শহরের সেবা ক্লিনিক ও ডায়াগনোস্টিক সেন্টারের ২০৩ নম্বর কেবিন থেকে সিজারের তিন ঘন্টা পর এক মেয়ে নবজাতক চুরির ঘটনা ঘটে। ১৬ ঘন্টা পর মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে কালীগঞ্জ শহরের নিশ্চিন্তপুর এলাকা থেকে নবজাতকটিকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নবজাতকের বাবা মনিরুল ইসরাম বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন।

এন খন্দকার/চারিদিক/সাকিব