কোথায় আছেন পপি?

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক : ২০২০ সালের মতো কঠিনতম বছরেও ফেসবুকে নিয়মিত ছিলেন চিত্রনায়িকা সাদিকা পারভিন পপি। সেখানেও নেই এখন। ডিসেম্বরের ২৩ তারিখের পর থেকে আর ফেসবুকে তার কোনো পোস্ট নেই।

সর্বশেষ ফেসবুক পোস্টে পপি লিখেছিলেন, ‘স্বপ্ন দেখতে দেখতে হঠাৎ, তুমি এসে হাজির, অন্ধকারে ভালোবাসার ঝলকানি!’

পপির এই পোস্ট নিয়েও শুরু হয় গুঞ্জন। বাতাসে খবর মিলেছে, পপি বিয়ে করে রাজধানীর বারিধারা ডিওএইচএসের বাসায় উঠেছেন। এরমধ্যে আবার শোনা গেল, সেই সংসারে ভাঙনের খবর। বারিধারা ডিওএইচএস থেকে পপি চলে গেছেন বনশ্রীর বাড়িতে। এসবই মিডিয়ার পাড়া-মহল্লায় ভেসে বেড়ানো খবর।

করোনাভাইরাসের কারণে শোবিজ থেকে দূরে ছিলেন পপি। সেই বিরতি ভেঙে তিনি কাজে ফেরেন রাজু আলীম ও মাসুমা তানির যৌথ পরিচালনায় ‘ভালোবাসা প্রজাপতি’ নামের একটি সিনেমা দিয়ে। শুটিংও করেন কিছুদিন। কিন্তু তারপরেই সব বন্ধ। কোথাও নেই পপি। এরই মধ্যে উৎসুক অনেকে পপির বাসায় খোঁজ নিয়ে জানতে পেরেছেন তিনি বাবা-মায়ের সঙ্গেও থাকছেন না। এজন্য তার বিয়ের গুঞ্জনটি আরও ডালপালা মেলেছে। কেউ কেউ তো বলছেন, বিয়ে করেছেন বলেই নিজেকে আড়ালে নিয়ে গেছেন পপি। ঘর সংসার নিয়ে তিনি ব্যস্ত।

গণমাধ্যমকর্মী থেকে শুরু করে অনেক চিত্রনির্মাতারাও দাবি করছেন, গোপনে সংসার পেতেছেন একাধিকবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া এই অভিনেত্রী।

এদিকে, পপির একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র মতে, নায়িকা এখন ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। তাই কারো সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন না। এমনকি কোনো ধরনের কাজও করছেন না তিনি। খুব দ্রুতই হয়তো তিনি নিজের সম্পর্ক কিংবা বিয়ে নিয়ে ঘোষণাও দেবেন।

সম্প্রতি খবর প্রকাশ হয়েছে তার অভিনীত ‘ডাইরেক্ট অ্যাকশন’ সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে ঈদে। কিন্তু ছবি মুক্তি পেলেও কোনো ধরনের প্রচারণায়ও নেই অভিনেত্রী। এমনকি কোনো ধরনের টিভি অনুষ্ঠানেও দেখা মিলছে না তার। চলচ্চিত্রে পপির কাছের মানুষেরাও তার খোঁজ দিতে পারেননি।

এদিকে, কয়েক মাস আগে গুঞ্জন ওঠে পপি বিয়ে করেছেন গোপনে। যদিও এ নায়িকা পরবর্তীতে এ গুঞ্জনকে মিথ্যা বলে উড়িয়ে দেন। কিন্তু পপির এমন ডুব দেয়ার বিষয়টি এই গুঞ্জনকে আরো জোরদার করছে বলেও মনে করছেন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা।

১৯৯৭ সালে মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘কুলি’ সিনেমায় অভিনয় করে অভিষেক হয় পপির। তারপর উপহার দিয়েছেন অনেকগুলো ব্যবসা সফল সিনেমা।

চারিদিক/সিডি