চেয়ার সরাতে বলায় ইউএনওর ওপর ক্ষিপ্ত হলেন কৃষি কর্মকর্তা!

যশোর জেলার খবর

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের অভয়নগর উপজেলা পরিষদের আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় চেয়ার সরাতে বলায় ইউএনও’র ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে বিরুপ আচরণ করেছেন কৃষি কর্মকর্তা। এ ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা কমিটির উপস্থিত সদস্যরা হতবাক হয়ে পড়েন।

বুধবার (১০ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় এ ঘটনা ঘটে।

সভায় উপস্থিত সদস্যরা জানান, সভার শুরুতেই প্রথম সারিতে ইউএনও’র পাশে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা গোলাম ছামদানী (২৯ তম বিসিএস) বসে ছিলেন। কিছুক্ষণ পর সভায় উপস্থিত হন উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. বিপ্লবজিৎ কর্মকার (১৯ তম বিসিএস)। এ সময় ইউএনও উক্ত সিনিয়র কর্মকর্তাকে পাশে বসার আহবান জানালে কৃষি কর্মকর্তার চেয়ারটি একটু সরানো জন্য বলা হয়। এতে কৃষি কর্মকর্তা ইউএনও’র ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে বিরুপ আচরণ শুরু করেন। এক পর্যায়ে সভাটি দেরিতে হচ্ছে কেন? বলে তিনি চিৎকার শুরু করেন। এসময় আইনশৃঙ্খলা কমিটির উপস্থিত সদস্যরা প্রতিবাদ করলে কৃষি কর্মকর্তা সভা ত্যাগ করে বেরিয়ে যান।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাজমুল হুসেইন খাঁন জানান, ‘সম্প্রতি উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা গোলাম ছামদানীর বিরুদ্ধে কৃষি প্রণোদনা ২৪ লাখ টাকার সঠিক হিসাব না পাওয়ায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটি গঠনের পর থেকেই তিনি এ ধরণের বিরুপ আচরণ করছেন। যা দুঃখজনক।’

কৃষি কর্মকর্তা গোলাম ছামদানী জানান, আইনশৃঙ্খলা কমিটির মিটিংয়ের পূর্বে ২১ ফেব্রুয়ারির প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ইউএনও সেটা না করে প্রথমেই আইনশৃঙ্খলা কমিটির মিটিং করায় আমি প্রতিবাদ করেছি।

তবে, কৃষি প্রণোদনার ২৪ লাখ টাকা বিষয়ে জানতে চাইলে এ প্রতিবেদককে তা এড়িয়ে যান কৃষি কর্মকর্তা গোলাম ছামদানী।

চারিদিক/এম