ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টাইগারদের দাপুটে জয়

খেলার খবর

ক্রীড়া ডেস্ক : ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডেতে আজ মাঠে নামে বাংলাদেশ। তামিম-সাকিব-মুশফিক-মাহমুদউল্লাহর হাফসেঞ্চুরিতে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৯৭ রান করেছে টাইগাররা।

২৯৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি উইন্ডিজদের। মাত্র ১ রান করে মুশফিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে মোস্তাফিজের শিকার হন কিওর্ন অটলি। এরপর সাঝঘরে ফিরেন আরেক ওপেনার সুনিল অ্যামব্রিস। তিনি ১৩ রান করে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে মোস্তাফিজের দ্বিতীয় শিকার হন। শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারায় উইন্ডিজরা।

নিজের দ্বিতীয় ওভার করতে এসেই কাইল মায়ার্সকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে সাজঘরে ফেরান মিরাজ। ১১ রান করে ফিরেন মায়ার্স। মিরাজের পর উইন্ডিজ শিবিরে জোড়া আঘাত হানেন সাইফউদ্দিন।

ক্যারিবীয় অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদকে ১৭ রানে মুশফিকের ক্যাচ বানিয়ে ফেরান সাইফউদ্দিন। এনক্রুমাহ বোনারের সঙ্গে চতুর্থ উইকেটে ৩২ রানের জুটি গড়েন তিনি।

অন্যদিকে, ৩১ রান করা এনক্রুমাহ বোনারকে বোল্ড করে দ্বিতীয় উইকেট শিকার করেন তিনি। নিজের সপ্তম ওভারে উইকেটরক্ষক জাহমার হ্যামিল্টনকে সাজঘরে ফেরান মিরাজ। ৫ রানে মুশফিকের কাছে গ্লাভসবন্দি হয়ে মিরাজের দ্বিতীয় শিকার হন তিনি।

দলের বাকি ব্যাটসম্যানরা একে একে সাঝঘরে ফিরে গেলেও এক প্রান্ত আগলে রাখেন রোভম্যান পাওয়েল। হাফসেঞ্চুরির দিকেই যাচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু তাকে হাফসেঞ্চুরির আগেই বিদায় করেন সৌম্য। ৪৯ বলে ২ চার ও সমানসংখ্যক ছয়ে ৪৭ রান করে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে ফিরেন পাওয়েল।

এরপর ১১ রান করে রান আউটের শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে পথে হাঁটেন আলজারি জোসেফ। রানের খাতা না খুলেই মুশফিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাইফউদ্দিনের তৃতীয় শিকার হন আকিল হোসেইন।

উইন্ডিজদের শেষ উইকেটটি নেন তাসকিন হোসেন। ২৭ রান করে তাসকিনের বলে তার হাতে তালুবন্দি হয়ে ফিরেন রেমন্ড রেইফার। এরই ফলে ১৭৭ রানেই অলআউট হয়ে যায় উইন্ডিজরা। ১২০ রানের বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছে টাইগাররা। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে টাইগারদের কাছে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে ক্যারিবীয়রা।

চারিদিক/এম