শান্তিলতার ‘শান্তি নীড়ে’ উপহার হাতে আ’লীগ নেতা বাবুল

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল দেশের খবর যশোর জেলার খবর

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি।।

শিক্ষাবিস্তারের বিশেষ অবদান ও সর্বস্বত্যাগী যশোরের অভয়নগরে উপজেলার প্রেমবাগ ইউনিয়নের মাগুরা গ্রামের শান্তিলতা ঘোষ। যিনি এলাকায় শিক্ষাবিস্তারের স্বার্থে নিজের সর্বস্ব সম্পত্তি দান করেছেন। সেই মহিয়সী নারী শান্তিলতা ঘোষের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিতে ছুটে যান অভয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র আলহাজ্ব এনামুল হক বাবুল।

শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে মাগুরা গ্রামে শান্তিলতার শান্তি নীড়ে ঘন্টাব্যাপী অবস্থান করেন এনামুল হক বাবুল। একান্তে শান্তিলতা ঘোষের সাথে কথা বলেন তিনি। পরে কিছু উপহার সামগ্রী দেওয়া হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্রেমবাগ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মফিজ উদ্দিন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রণজিত কুমার মন্ডল, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার বাবুল আক্তার, শ্রমিকলীগ নেতা সৈয়দ মনোয়ার হোসেন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন আলমগীর বাচ্চু, ইউপি সদস্য আসাদুজ্জামান আসাদ, সমাজসেবক মাস্টার লুৎফর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক এড. রওশন কবীর টুটুল, শিক্ষানুরাগী দেবাশীষ দাস নান্টু সহ আওয়ামী লীগ ও সকল সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মী।

প্রসঙ্গত, স্বাধীনতা পরবর্তী সময় শান্তিলতা ঘোষ নিজ গ্রামে শিক্ষাবিস্তারের লক্ষ্যে নিঃশর্তে ৩৩ শতক ও মাগুরা বাজার স্থাপনের জন্য ৫০ শতক জমি দান করেছিলেন। কিছুদিন পূর্বে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি তাঁকে সম্মাননা প্রদান করেন এবং শান্তিলতার দেওয়া জমিতে গড়ে ওঠা মাগুরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নামকরণ ‘মাগুরা শান্তিলতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়’ করার প্রস্তাব করেন।