টিটোর জানাযা সম্পন্ন: দিলু-রউফসহ ১৭ জনের নামে মামলা

অপরাধ ও আইন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল দেশের খবর যশোর জেলার খবর রাজনীতি

স্টাফ রিপোর্টার।।

যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার বেতালপাড়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় আওয়ামী লীগ কর্মী খালেদুর রহমান টিটো নিহতের ঘটনায় মামলা হয়েছে।
স্বতন্ত্র প্রার্থী (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) দিলু পাটোয়ারী ও তার ভাই নূর মোহাম্মাদ পাটোয়ারী,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুর রউফসহ  ১৭ জনকে মামলায় আসামি করা হয়েছে।

এছাড়া এ মামলায় অজ্ঞাত আরো ২০-৩০ জনকে আসামি করা হয়। ইতোমধ্যে বাবু নামে একজনকে গ্রেফতারও করেছে পুলিশ।বাবু জহুরপুর ইউনিয়নের বেতালপাড়ার শাহ আলমের ছেলে।

এদিকে শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটায় জহুরপুর ইউনিয়নের বেতালপাড়ায় নিহত টিটোর জানাযা অনুষ্ঠিত হয়েছে।জানাযায় অংশ নেন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।বুধবার রাতে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত হন টিটো।
নিহতের ভাই বদর উদ্দিন বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) রাতে বাঘারপাড়া থানায় মামলা করেন।পুলিশ অন্য আসামিদের ধরতে অভিযান শুরু করেছে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, আওয়ামী লীগ কর্মী খালেদুর রহমান টিটো (২৪) উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের উপ-নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের কর্মী হয়ে কাজ করছিলেন। বুধবার (৯ ডিসেম্বর) রাতে তিনি ও আওয়ামী লীগের কয়েকজন কর্মী বেতালপাড়া বাজারে নির্বাচনী প্রচারণায় ছিলেন। এসময় স্বতন্ত্র প্রার্থী  দিলু পাটোয়ারীর কর্মী-সমর্থকরা তাদের ওপর হামলা চালায়।

এতে গুরুতর আহত হন টিটো। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় রাতেই তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়। পরদিন বৃহস্পতিবার সকালে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল নয়টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
বাঘারপাড়া থানার ওসি সৈয়দ আল মামুন জানান, বৃহস্পতিবার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন শেষে নিহত টিটোকে দাফন করেছে তার পরিবার। রাতে তার ভাই ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। আসামিদের মধ্য থেকে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের ধরতেঅভিযান শুরু হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে শুক্রবার বিকেল তিনটার পর হাসপাতাল থেকে টিটোর মরদেহ বাড়িতে পৌঁছালে মা-বাবা, স্ত্রী ও ভাইসহ স্বজনদের কাঁন্নায় আকাশ-বাতাস ভারি হয়ে ওঠে। বিকেল সাড়ে চারটায় জহুরপুর ইউনিয়নের বেতালপাড়ায় জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

জানাযায় উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম আফজাল হোসেন, বাঘারপাড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আল মামুন,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক নজরুল ইসলাম, যশোর জেলা পরিষদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার বিপুল ফারাজী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ, রায়পুর ইউপি চেয়ারম্যান মঞ্জুর রশিদ স্বপন, জামদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম টুটুল,আওয়ামী লীগ নেতা শেখ ইউনুস আলী, বন্দবিলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সামাদ মন্ডল,সাধারন সম্পাদক আব্দুল হামিদ ডাকু, আওয়ামী লীগ নেতা সাইফুজ্জামান চৌধুরী ভোলা, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা আব্দুল্লাহ রানা, বাঘারপাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি বায়েজীদ হোসেন ও সম্পাদক বিএম শাহজালাল প্রমুখ।

এর আগে বিকেল চারটায় নব-নির্বাচিত উপজেলা  চেয়ারম্যান ভিক্টোরিয়া পারভিন সাথী নিহত টিটোকে শেষবারের মত দেখতে ও তার পরিবারকে সান্তনা দিতে বেতালপাড়া গ্রামে ছুটে যান।