চাল চুরির মামলায় বাচ্চুর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি

অপরাধ ও আইন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল যশোর জেলার খবর

যশোর প্রতিনিধি।।

যশোরের মণিরামপুরে সরকারি ত্রাণের চাল চুরির মামলায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রীর ভাগ্নে উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চুর বিরুদ্ধে মালক্রোক ও গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

গত ১ অক্টোবর উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চুসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে ডিবি পুলিশ। চার্জশিটের ওপর শুনানি শেষে আসামি উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চু আদালতে হাজির না হওয়ায় ৬ অক্টোবর মালক্রোক ও গ্রেফতারি পরোয়ানার এ আদেশ দেন আদালত।

এদিকে আদালত গ্রেফতারি জারি করলেও দেড় মাসে মনিরামপুর থানা পুলিশ গ্রেফতারি পরোয়ানা হাতে পায়নি।

মনিরামপুর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, তিনি উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চুর গ্রেফতারি পরোয়ানা এখনো হাতে পাননি। অথচ যশোর থেকে মনিরামপুরের দুরত্ব ১৭ কিঃমিঃ।

গত ৪ এপ্রিল খুলনার মহেশ্বরপাশা থেকে যশোরের মনিরামপুরের উদ্দেশে ৫ ট্রাক সরকারি ত্রাণের চাল আসে। যার মধ্যে থেকে এক ট্রাক চাল গোডাউনে লোড না দিয়েই স্থানীয় ভাই ভাই রাইস মিলে পাঠানো হয়। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে ৫৪৯ বস্তা চাল উদ্ধার এবং মিল মালিক ও ট্রাক ড্রাইভারকে আটক করে।

আটক দু’জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চুসহ কয়েকজনের নাম প্রকাশ করে। তদন্ত শেষে উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চুসহ ৬ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে যশোর ডিবি পুলিশ।