শরণখোলায় বিকেল চারটা পর্যন্ত পড়েছে ৫৫ ভাগ ভোট

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল দেশের খবর রাজনীতি

মহিদুল ইসলাম,শরণখোলা (বাগেরহাট)।।

বাগেরহাটের শরণখোলায় উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে চারটি ইউনিয়নের ৩৩টি কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহন চলেছ। মঙ্গলবার বিকেল চারটা পর্যন্ত কেন্দ্রগুলোতে ৫৫ ভাগ ভোট পড়েছে। কোথাও কোনো সহিংস বা অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। পাঁচ জন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে উপজেলার সর্বত্র বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ টহলে রয়েছে। তবে কয়েকটি কেন্দ্রে বিএনপি প্রার্থীর কোনো এজেন্ট পাওয়া যায়নি।

দুপুর দুইটার দিকে বাগেরহাটের জেলা প্রশমাসক মো. মামুনুর রশীদ ও পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় উপজেলা বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র পরিদর্শ করেন। এসময় তাঁরা কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের সতষ্ফুর্ত উপস্থিতি ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

সকাল ১০টার দিকে উপজেলা সদর রায়েন্দা সরকারি পাইলট হাই স্কুল, রায়েন্দা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, লাকুড়তলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সরকারি কলেজ কেন্দ্রসহ বেশ কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে নারী-পুরুষ ভোটারদের দীর্ঘ লাইন। দল বেঁধে ভোট কেন্দ্রে আসছেন ভোটাররা। কেন্দ্রের আশপাশে একটা উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে।

প্রধান প্রতিদ্ব›িদ্ব বিএনপি প্রর্থী মতিয়ার রহমান খান বলেন, প্রতিপক্ষের বাঁধার কারনে তিনি কয়েকটি কেন্দ্রে এজেন্ট দিতে পারেননি। তবে শেষ পর্যন্ত তিনি মাঠে থাকবেন বলে জানান।

আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী রায়হান উদ্দিন শান্ত বিএনপি প্রার্থী তার এজেন্ট দিতে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি করে বলেন। যাতে কোথাও কোনো বিচ্ছৃঙ্খলা সৃষ্টি না হয় সেব্যাপারে আমার নেতা-কর্মীদের কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ভোটাররা তাদের ইচ্ছেমতো ভোট প্রদান করেব তাতে কোনো বাধা নেই। জনগণ যে রায় দেবে তা আমি সাদরে গ্রহন করবো।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার ফারাজী বেনজীর আহম্মেদ জানান, সবকটি কেন্দ্রেই শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহন চলছে। ভোটার উপস্থিতিও ভালো। বিকেল চারটা পর্যন্ত ৫৫শতাংশ ভোট পড়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো কেন্দ্রে প্রার্থীরাও কোনো অভিযোগ করেননি। আশা করা যায় শেষ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবেই নির্বাচন সম্পন্ন হবে। ##