হাসপাতালে চকিৎিসা নিতে গিয়ে পালিয়েছে এক `বন্দি’কিশোর

অপরাধ ও আইন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল যশোর জেলার খবর

যশোর প্রতিনিধি।।

যশোর ২৫০ শয্যা বশিষ্টি জেনারেল হাসপাতালে চকিৎিসা নিতে গিয়ে যশোর কশিোর উন্নয়ন কেন্দ্রের (বালক) রাজু বশ্বিাস (১৬) নামে এক কশিোর ‘বন্দি’ পালিয়েছে।এ ঘটনায় থানায় জিডিই হয়েছে।

সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালরে আউটডোরে তাকে চকিৎিসা সেবা দওেয়ার জন্যে নামিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

কেন্দ্রের মেডিকেল সহকারী নজির আহমদে বলনে, ‘সকালে বন্দি রাজু বিশ্বাসকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাই। তাকে হাসপাতালের ডাক্তার সোলায়মান কবীরকে দেখিয়ে ওষুধ কিনতে যাই। ওই সময় রাজুকে কেন্দ্রের মাইক্রোবাসের ভেতরে রেখে  বাইরে থেকে লক করে রাখা হয়। ফিরে এসে দেখি সে গাড়িতে নেই। ভেতর থেকে লক খুলে সে পালিয়ে গেছে।

যশোর শশিু উন্নয়ন কেন্দ্রের (বালক) তত্ত্বাবধায়ক (সহকারী পরচিালক) জাকির হোসেন বলেন, ‘আমাদের কর্মীরা বাসস্ট্যান্ড, টার্মিনাল, রেলষ্টেশনসহ বিভিন্ন স্থানে তাকে খুঁজছে। এ বিষয়ে কোতয়ালী থানায় একটি জিডিই করা হয়েছে।

তিনি জানান, তিন সপ্তাহ আগে (১১ সপ্টেম্বের)পেঁয়াজ চুরির একটি মামলায় ফরিদপুর থেকে ওই কিশোরকে যশোর কেন্দ্রে পাঠানো হয়। তার বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। সেকারণে আজ (২৮ সেপ্টেম্বর)সকালে কেন্দ্রের কর্মীদের সঙ্গে তাকে যশোর জনোরলে হাসপাতালে একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে পাঠানো হয়।

পলাতক রাজু ফরদিপুর জেলার বোয়ালমারী উপজলোর দেবকনিন্দপুর গ্রামরে আব্দুল ওহাব বিশ্বাসের ছেলে।