গফরগাঁওয়ে ৯ জুয়ারী আটক

অপরাধ ও আইন

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি।।

ময়মনসিংহের গফরগাঁও থানা পুলিশ চরআলগী ইউনিয়নের চরমছলন্দ কাঁচারী পাড়া ও রাওনা ইউনিয়নের খারুয়া বড়াইল গ্রামে জুয়ার আসরে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৯ জুয়ারীকে আটক করেছেন। রোববার বিকেলে বঙ্গীয় জুয়া আইনে মামলা দিয়ে তাদেরকে ময়মনসিংহ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গফরগাঁও থানা পুলিশের একটি দল শনিবার রাত ১২টার দিকে উপজেলার চর আলগী ইউনিয়নের চরমছলন্দ কাঁচারী পাড়া গ্রামের জনৈক রফিকুলের চায়ের দোকানের ভিতর জুয়ার আসরে অভিযান চালান। এ সময় কাঁচারী পাড়া গ্রামের মন্তাজ আলীর ছেলে জুয়েল মিয়া (৩৫), রইছ উদ্দিনের ছেলে পাবেল মিয়া (২১), রিপন মিয়ার ছেলে আব্দুস সামাদ (২১), মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে নাদিম মিয়া (২৪), হেলালের ছেলে মুক্তাকিনকে (২৪) পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। অন্যদিকে শনিবার রাত দেড়টার দিকে উপজেলার রাওনা ইউনিয়নের খারুয়া বড়াইল গ্রামের জনৈক তুহিন মিয়ার রান্না ঘরের ভিতর জুয়ার আসরে অভিযান চালিয়ে সালটিয়া গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে কামাল মিয়া (৪০), চরমছলন্দ কাচাঁরী পাড়া গ্রামের মৃত হুছেন আলীর ছেলে মফিজ উদ্দিন(৪৫), মৃত তাহের আলীর ছেলে ফিরোজ মিয়া(৩০), মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে লিটন মিয়াকে (৪৫) আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। আটককৃতদের বিরুদ্ধে বঙ্গীয় জুয়া আইনে মামলা রুজু করে শনিবার বিকালে ময়মনসিংহ আদালতে প্রেরণ করা হয়। এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, বৃটিশ আমলের আইন অনুযায়ী ২০০ টাকা জরিমানা করে ছেড়ে দেওয়া হয় জুয়াড়ীকে। যে কারনে জুয়াড়ীরা ছাড়া পেয়ে আবার জুয়ার আসর বসায়।

গফরগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ অনুকুল সরকার বলেন, মাদক ও জুয়ার বিরুদ্ধে আমাদের নিয়মিত অভিযান অব্যাহত আছে। দুইটি জুয়ার আসরে অভিযান চালিয়ে ৯ জনকে আটক করে ময়মনসিংহ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।