‘কাজলের অকাল মৃত্যু মানতে পারছেনা কেউ-ই’

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল যশোর জেলার খবর রাজনীতি

স্টাফ রিপোর্টার।।

সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা নাজমুল ইসলাম কাজলের স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর)  বিকেলে বাঘারপাড়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এ স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। স্বরণসভায় বক্তারা বলেন.নাজমুল ইসলাম কাজলের অকাল মৃত্যু কিছুতেই মানতে পারছেনা বাঘারপাড়াবাসী।তিনি ছিলেন একজন পরিচ্ছন্ন রাজনীতিক।প্রয়াত নাজমুল ইসলাম কাজলের সহোদর ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম টুটুল বলেন,কাজল আমার শুধু ভাই-ই নয়,তিনি ছিলেন আমার বন্ধু।এ সময় অনেক স্মৃতির কথা উল্লেখ করেন শোকাহত টুটুল। এ সময় কাঁন্নায় ভেঙ্গে পড়েন তিনি।

উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন  উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানিয়া আফরোজ,উপজেলা সহকরী কমিশনার (ভূমি) ফারজানা জান্নাত, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিথীকা বিশ্বাস ও আব্দুর রউফ মোল্যা,পৌর মেয়র কামরুজ্জামান বাচ্চু, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আল মামুন,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হোসেন, কবির,মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ, নাজমুল ইসলাম কাজলের সহোদর ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম টুটুল, ইউপি চেয়ারম্যান আবু মোতালেব রফদার,মঞ্জুর রশিদ স্বপন,আবুল সরদার, সবদুল হোসেন খান ও আইয়ুব হোসেন বাবলু,আওয়ামীলীগ নেতা মাস্টার ঈমদাদ হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালেক মাস্টার,উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার শরিফুল ইসলাম,প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা এএফএম মান্নানসহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক-সামাজিক নেতৃবৃন্দ।অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সহকরী মাধ্যমিক কর্মকর্তা আল মামুন আল আজাদ।

স্মরণ সভা শেষে দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

গত ৭ সেপ্টেম্বর হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় ডাকা-সিলেট মহাসড়কে এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় নাজমুল ইসলাম কাজল নিহত হন।এ ঘটনায় নারীসহ আরও তিনজন নিহত হয়েছিলেন। এর মধ্যে কাজলের ফুফাতো ভাই রাসেলও ছিলেন।