বাসুয়াড়ী ইউপি চেয়ারম্যান সাঈদ সাময়িক বরখাস্ত

অপরাধ ও আইন দেশের খবর যশোর জেলার খবর

স্টাফ রিপোর্টার।।

ডিজিটাল নিরাপত্তা এবং টেলিযোগাযোগ আইনে মামলা বিচারাধীন থাকায় যশোরের বাঘারপাড়ার ৮ নম্বর বাসুয়াড়ী ইউপি চেযারম্যান আবু সাঈদ সরদারকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।গত ৩১ আগস্ট স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানাগেছে।

সূত্র জানায়, চেয়ারম্যান আবু সাঈদ শ্রমজীবি মানুষের জাতীয় পরিচয়পত্র ও আঙ্গুলের ছাপ ব্যবহারের মাধ্যমে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম রেজিস্ট্রেশন করে দেশের বিভিন্ন স্থানে অপরাধমূলক কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগে যশোরের বাঘারপাড়া থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন এবং নড়াইল সদর থানায় টেলিযোগাযোগ আইনে দায়েরকৃত মামলা বিচারাধীন রয়েছে। একই সাথে ইউনিয়ন পরিষদ আইনে এসব অভিযোগের ব্যাপারে যশোরের জেলা প্রশাসকের কাছে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ থাকায় চেয়ারম্যান সাঈদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নিয়েছে স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নযন ও সমবায় মন্ত্রণালয়েরর স্থানীয় সরকার বিভাগ। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় চেয়ারম্যান আবু সাঈদ সরদার হাইকোর্ট থেকে গত বছরের ১২ নভেম্বর  ৪ সপ্তাহের আগাম জামিন নেন। জামিনের মেয়াদ শেষ হয় গেল বছরের ১৮ ডিসেম্বর। কিন্তু মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগের নির্দেশনা মতে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তিনি ট্রাইব্যুনালে আত্মসমর্পণ করেননি। গত ২৯ জানুয়ারি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ পুনরায় আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এ সময় কয়েকদিন জেলহাজতে থাকতে হয় তাঁকে।জানতে চাইলে বাঘারপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানিয়া আফরোজ জানান,স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে আমাকে এ সংক্রান্ত (সাময়িক বরখাস্ত) একটি ই-মেইল করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে’।