গফরগাঁওয়ে বিয়ের দুই সপ্তাহ পর বুদ্ধিপ্রতিবন্ধি তরুনের আত্মহত্যা !

অপরাধ ও আইন

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি।।
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে বিয়ের দুই সপ্তাহের মাথায় ফেরদৌস (২২) নামে এক তরুন কীটনাশক পানে আত্মহত্যা করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে উপজেলার রসুলপুর চকপাড়া গ্রামে। এ ঘটনায় গফরগাঁও থানায় দায়েরকৃত অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রসুলপুর চকপাড়া গ্রামের শহীদ মিয়ার ছেলে ফেরদৌস বুদ্ধিপ্রতিবন্ধি। প্রায়ই সে অস্বাভাবিক আচরণ করতো। সপ্তাহ দুয়েক আগে পরিবারের লোকজন ফেরদৌসকে বিয়ে দেন। বুধবার সন্ধ্যায় ফেরদৌস স্থানীয় রসুলপুর চৌরাস্তা বাজারে যায়। সেখানে আড্ডা দিয়ে রাত ৮টার দিকে বাড়ি ফেরে। ওই রাতে বাড়ির পাশের জঙ্গলে কীটনাশক পান করে বসত ঘরের পিছনে পড়ে কাতরাতে থাকে সে। রাত ১১ টার দিকে পরিবারের লোকজন খোঁজ পেয়ে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহতের ভাই মিষ্টার রাতেই গফরগাঁও থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করেছেন।
গফরগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ অনুকুল সরকার বলেন, এ ঘটনায় দায়েরকৃত অপমৃত্যু মামলার ভিত্তিতে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের ভিত্তিতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।