ঝিনাইদহ জজ আদালতের কর্মচারীসহ করোনায় দুইজনের মৃত্যু

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল দেশের খবর

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি॥
ঝিনাইদহে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তিরা হলেন পদ্মাকর ইউনিয়নের লক্ষিপুর গ্রামের মোদাচ্ছের হোসেনের স্ত্রী মাজেদা বেগম (৭৫) ও ঝিনাইদহ জেলা জজ আদালতের জারীকারক পবহাটী গ্রামের আব্দুল বারী জোয়ারদারের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৫০)। এই নিয়ে ঝিনাইদহে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২২ জনের মৃত্যু হলো। ঝিনাইদহ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক আব্দুল হামিদ খান জানান, গত ১১ আগষ্ট করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন মাজেদা বেগম। পরীক্ষায় তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। মাজেদা বেগমের অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে ঢাকার শ্যামলী এলাকার বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার দুপুরে মৃত্যু ঘটে। এদিকে ঝিনাইদহ জেলা জজ আদালতের জারীকারক মোঃ সাইফুল ইসলাম করোনা উপসর্গ নিয়ে ১৭ আগষ্ট ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। ২০ আগষ্ট তার পজিটিভ রিপোর্ট আসলে তাকে ঝিনাইদহ কোভিড-১৯ হাসপাতালে (শিশু হাসপাতাল) ভর্তি করা হয়। তার অবস্থার অবনতি হলে ২১ আগষ্ট ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়। সোমবার বিকাল ৫টায় তার মৃত্যু হয়।
ঝিনাইদহ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক আব্দুল হামিদ খান জানান, জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ ও পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় ও সদর উপজেলার সিনিয়র ফিল্ড সুপারভাইজার আমিনুল ইসলাম এর নেতৃত্বে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের লাশ দাফন কমিটি দুইজনের লাশ দাফন করে। ইফা গঠিত কমিটি এ পর্যন্ত ৪৪ জন করোনায় আক্রান্ত ও করোনা উপসর্গ মৃত ব্যক্তির লাশ দাফন সম্পন্ন করেছেন।