“বশেমুরবিপ্রবি’র কম্পিউটার চুরি: তদন্ত কমিটির সদস্য এস্কান্দার আলীর পদত্যাগ

দেশের খবর

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি।।
গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি থেকে ৪৯ টি কম্পিউটার চুরির ঘটনায় গঠিত সাত সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি থেকে কমিটির সদস্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রকৌশলী এস. এম. এস্কান্দার আলী পদত্যাগ করেছেন।
আজ বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বরাবর তিনি তার পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। তবে ঠিক কি কারণে তিনি পদত্যাগ করেছেন সে সম্পর্কে মুঠোফোনে তার কাছে জানতে চাওয়া তিনি বলেন, আমি সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত কারণে পদত্যাগ করেছি। এখানে অন্য কোনো কারণ নেই।
তদন্তকারী দলের প্রধান আব্দুল কুদ্দুস মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ওই সদস্য ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করেছেন এবং সে বিষয়ে আমাকে জানানো হয়েছে। পদত্যাগ গৃহীত হলে তদন্তের কাজে নতুন কোনো সদস্য যুক্ত করা হবে কিনা সে বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে জানতে চাওয়া হবে।
এপ্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের চলতি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহজাহান জানান, তদন্তকারী দলের একজন সদস্য পদত্যাগ করেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের পরবর্তী কার্যদিবসে (রবিবার) এবিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।
এর আগে কম্পিউটার চুরির ঘটনায় তদন্তকে সকল প্রশ্নের উর্দ্ধে রাখার স্বার্থে ৭ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি থেকে তদন্ত জমা দেয়ার নির্দিষ্ট সময়ের ২ দিন আগেই রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে অব্যাহতি দেয়া হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী রেজিস্ট্রার নজরুল ইসলাম হিরাকে। ইঞ্জিনিয়ার এস. এম. এস্কান্দার আলীর পদত্যাগের মাধ্যমে এ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে পাঁচজনে।
প্রসঙ্গত, ইতোমধ্যে পুলিশ কম্পিউটার চুরির ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৬-১৭ সেশনের শিক্ষার্থী মাসরুল ইসলাম পনি শরীফসহ সাত জনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে। এছাড়া চুরি যাওয়া ৪৯টি কম্পিউারের মধ্যে ৩৪টি ঢাকার একটি আবাসিক হোটেল থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।